Wednesday, June 23, 2021

পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া টিপস

শীত আসা মানেই ত্বকের যত্নে আমরা নাজেহাল হয়ে পড়ি। আর তাঁর ওপরে যদি পা ফাটার সমস্যা হয় তাহলে তো আর যন্ত্রণার শেষ নেই। পা ফাটার কী যে অসহ্য যন্ত্রণা তা ভুক্তভোগী রাই জানে। শুষ্ক আবহাওয়া এবং পায়ের পাতার যে অংশে চাপ বেশী পড়ে সেই অংশ ফেটে যায়। এই সমস্যা সমাধানের জন্য অনেকে ক্রিম ব্যবহার করে থাকেন। এই সমস্যা কিছু সময়ের জন্য স্থগিত হলেও পরবর্তীতে সেই সমস্যা পুনরায় আবার শুরু হয়।

তাই আমরা জানবো কীভাবে ঘরোয়া উপায় ব্যবহার করে পা ফাটার সমস্যাকে মোলায়েম করে তুলতে পারা যায়? সেটাই আমরা আলোচনা করবো-

ভেসলিন ও লেবুর রসঃ- পা ফাটার সমস্যা নিরাময়ের জন্য ভেসলিন অত্যন্ত কার্যকরী। তাই ভেসলিনের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে পা ফাটায় লাগিয়ে মালিস করুন। এতে করে ওই ক্ষতস্থানে মিশ্রণ শোষণ হয়। আর শোষণ হলে পা ফাটা সহজেই সেরে যায়।

নিমপাতাঃ- নিমপাতা হল সব রোগ নিরাময়ের ওষুধ। তাই নিমপাতা ১০-১৫ টি নিয়ে ধুয়ে ভালো করে বেটে নিন। এর সাথে ৩ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই পেস্টটি বিশ থেকে ত্রিশ মিনিট ফাটাস্থানে রাখার পর ভালো করে পা ধুয়ে নিন। পা ধোয়ার পর ভালো করে মুছে নিন। যার ফলে নিমের মধ্যে থাকা অ্যান্টিফাঙ্গাল উপাদান পা ফাটা রোধ করতে সহায়তা করে।

চালের গুঁড়োঃ- আধ কাপ চালের গুঁড়ো, এক চা চামচ মধু ও এক চা চামচ আপেল সাইডার ভিনিগার একসঙ্গে মিশিয়ে পায়ের গোড়ালিতে মালিশ করুন। এতে করে পা ফাটা দ্রুত সেরে যায়।

পাকা কলাঃ- কলা যেমন পুষ্টিতেও ভরপুর তেমন পা ফাটার জন্যেও অত্যন্ত কার্যকরী। কলাকে ভালো করে ব্লেন্ড করে একটা পেস্ট তৈরি করুন। এই মিশ্রণটি প্রতিদিন রাত্রে শোবার আগে পায়ের গোড়ালির ক্ষতস্থানে ভালো করে লাগিয়ে নিন। ফলে কিছুদিনের মধ্যে পা ফাটা দ্রুত সেরে যাবে।

বেকিং সোডাঃ- একটি বড় পাত্রে কুসুম গরম পানিতে চার চামচ বেকিং সোডা ভালো করে মিশান। এবং পানিতে ৩০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। পা হাল্কা ব্রাশে করে ঘষুন। এরপর পরিষ্কার পানিতে পা ধুয়ে মুছে ফেলুন। পা শুকিয়ে গেলে ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এটি আপনার পা ফাটা রোধ করবে।

লেবুঃ- লেবু পায়ের ত্বক রুক্ষ হয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। একটি লেবু কেটে নিয়ে সরাসরি তা দিয়ে পায়ের গোড়ালিতে ঘষুন। এছাড়াও কুসুম গরম পানি করে লেবুর রস মিশিয়ে ২০-২৫ মিনিট ডুবিয়ে রেখে একটি ব্রাশ দিয়ে ঘষে নিন পায়ের গোড়ালিতে। এতে পা ফাটা প্রতিরোধ হয়।

গ্লিসালিনঃ- পা ফাটার জন্য গ্লিসালিন ও গোলাপ জলের মিশ্রণ খুবই উপকারী। গ্লিসালিনের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটিকে ফাটাস্থানে লাগান। তারপর দেখবেন কিছুদিনের মধ্যেই পা ফাটা সেরে যাবে।

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

টাটকা আপডেট

সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ