রাগ কমানোর ১০টি সহজ উপায়

অতিরিক্ত রাগ মোটেও ভালো নয়। কাজেই রাগকে নিয়ন্ত্রনে রাখা খুবই জরুরি। হঠাৎ করে রাগের মাথায় কোনও কথা বা কাজ করে বসবেন না। রাগ শুধু স্বাভাবিক জীবন যাপনেই ক্ষতি করেনা, নানা শারীরিক সমস্যাও দেখা দিতে পারে যেমন ব্লাড প্রেসার, মেন্টাল, ডিসঅর্ডার ইত্যাদি। তাই রাগ কমানোর উপায় মেনে চলা অত্যন্ত জরুরী। তবে রাগের কারনে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ব্যক্তি নিজেই। তাই রাগ কমানোর উপায় জেনে নিন-

ব্যায়াম:- রাগ কমানো সবচেয়ে ভালো উপায় হলো ব্যায়াম। এটি আপনার আবেগকে নিয়ন্ত্রনে রাখে। ব্যায়ামের ফলে অতিরিক্ত এনার্জি কমে যায় ও মাসল টেনশন রিলিজ হয়ে শরীর ও মন খুব শান্ত হয়। তাই নিয়মিতভাবে হাঁটুন, দৌড়ান, সাইকেলিং করুন এগুলি আপনার নেগেটিভ ইমোশনাল নিয়ন্ত্রনে রাখতে সাহায্য করে।

ক্ষমা করুন:- আমরা সকলেই কমবেশি ভুল করে থাকি। তাই বলে সব বিষয়ে রেগে যাওয়া মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ নয়। তাই রেগে না গিয়ে একটু নিরপেক্ষভাবে বিষয়টি বোঝার চেষ্টা করুন এবং ক্ষমা করে দিন। এতে করে রাগের সমস্যা মিটবে।

ধূমপান ত্যাগ করুন:- অনেকেই আছেন রাগ কমানোর জন্য ধূমপান করেন আবার অন্য কোনো নেশাও করে থাকেন। কিন্তু এটি রাগ কমানোর সঠিক উপায় নয়। তাতে মনটা আরো উদ্বিগ্ন হয়ে মেজাজ হারিয়ে ফেলে।

আরও পড়ুন- দুপুরে ঘুমের অভ্যাস আছে! অজান্তেই ডেকে আনছেন নানা রোগ

বল থেরাপি:- বল থেরাপি নামে একটি বিষয় রয়েছে যেটিও রাগ কমাতে সাহায্য করে। মানুষ রেগে গেলে তাঁর মধ্যে এক ধরনের শক্তি তৈরি হয়। এক্ষেত্রে কিছু সফট বা নরম বল আছে যেগুলোকে হাতে নিয়ে চাপ দিলে ওই শক্তি বলে স্থানান্তরিত হয়। যার ফলে রাগ কমে যায়।

সমাধানের চেষ্টা করুন:- যে বিষয়ে আপনি রেগে যাচ্ছেন সেই বিষয়টিকে গুরুত্ব না দিয়ে কীভাবে সমস্যা সমাধান হবে তা নিয়ে ভাবুন। আর একটু মাথা ঠাণ্ডা করে ভাবলে সেটা করা যায়। আর সেটাই করার চেষ্টা করুন।

বুঝিয়ে বলুন:- কোনো বিষয়ে রেগে যাওয়ার জন্য আপনি তাকে চোখ লজ্জায় কিছু বলতে পারেননা। যদি তা দীর্ঘদিন চলতে থাকে তা আপনার প্রকাশ করা উচিত। রেগে গিয়ে তাঁর সাথে খারাপ ব্যবহার না করে তাঁকে বোঝান তাঁর আচরণে আপনি কষ্ট পাচ্ছেন।

স্থির থাকুন:- অস্থিরতা একটি অতিরিক্ত রাগের একটি কারন। যখন আমরা রেগে যায় তখন স্থির থাকাটা খুবি প্রয়োজন। আপনি যদি মানসিক দিক থেকে স্থির থাকেন তাহলে নিজের মনকে নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। এতে করে আপনার রাগটাও কমে যাবে।

ভালো কাজ করুন:- এমন ধরনের কাজ করতে পারেন যেটা আপনার ভালো লাগে। তাছাড়া কারো সাথে শেয়ার করতে পারেন রাগের কারন। এই পদ্ধতি অনুসরন করার ফলে, আপনার রাগ অনেকটাই কমতে থাকবে।

নিজেকে সময় দিন:- অতিরিক্ত রাগ আপনার পক্ষে মোটেও ভালো নয়। যখন আপনি প্রচন্ড রেগে যাবেন সেই জায়গা থেকে কিছুক্ষনের জন্য দূরে থাকায় ভালো। যা আপনাকে অন্য মনস্ক রাখবে। আর রাগ ধীরে ধীরে কমতে থাকবে।

এড়িয়ে চলা কিছু খাবার:- মানুষের রাগ হওয়াটা আবেগজনিত কারন। কিন্তু এর সাথে রয়েছে খাবারেরও সম্পর্ক। এমন কিছু খাবার আছে যা নিয়মিত খেলে রাগের সাথে জড়িত হরমোনে নিঃসরণ ঘটে, যা অতিরিক্ত রাগ ওঠার কারন হয়ে থাকে। যেমন ফাস্টফুড, তেলেভাজা খাবার, অতিরিক্ত চিনির বিকল্প জাতীয় খাবারগুলো না খাওয়ায় ভালো।

Related Articles

Popular Now

Categories

ABOUT US

Dainikchorcha.com is a blog where we post blogs related to Web design and graphics. We offer a wide variety of high quality, unique and updated Responsive WordPress Themes and plugin to suit your needs.

Contact us: [email protected]

FOLLOW US