Wednesday, June 23, 2021

করোনার মধ্যেই রাজ্যে ঢুকল মারন ভাইরাস, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস ধরার উপায়

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই রাজ্যে ঢুকল আরও একটি মারন ভাইরাস। করোনার পাশাপাশি দেশে বেড়ে চলেছে মিউকোরমাইকোসিস বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাস আক্রান্তের সংখ্যা। সংখ্যাটা দিন দিন বেড়ে চলেছে। এতদিন গুজরাত, মহারাস্ট্র, দিল্লি, কর্নাটকের মতো বেশ কিছু রাজ্যে সীমাবদ্ধ ছিল। এবার দেখা যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গেও। এই রোগ প্রথম অবস্থায় ধরা পড়লে নিরাময় করা সম্ভব। কিন্তু না হলে মারাত্মক রূপ ধারণ করতে পারে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস।

অন্যরাজ্য থেকে পশ্চিমবঙ্গে চিকিৎসা করতে আসা ৩ জনের শরীরে মিলল এই মারন ছত্রাক। তাঁদের মধ্যে ২ জন ঝাড়খণ্ড ও ১ জন বিহারের। হাসপাতাল সূত্রে খবর, তাঁরা প্রত্যেকেই করোনায় আক্রান্ত। করোনা বা উচ্চ ডায়াবেটিক রোগীদের এই সংক্রমণের প্রবনতা বেশি। তবে, এই রোগ ছোঁয়াচে নয়।

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস ধরার লক্ষণ
শরীরে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস হয়েছে কিনা, তা বেশ কিছু লক্ষণ দেখে বোঝা যায়। মাথা ব্যথা, নিঃশ্বাসের সমস্যা, দাঁতে যন্ত্রনা, চোখ ব্যথা, নাক থেকে রক্ত বেরোনো, এই রকম নানান উপসর্গ দেখা দেয়। এই সব উপসর্গ দেখা দিলেই বুঝতে হবে ওই রোগীর দেহে মারণ ছত্রাক প্রবেশ করেছে। তাড়াতাড়ি ফাঙ্গাস ধরতে এন্ডোস্কোপি করে নাক পরীক্ষা করুন। ডায়াবেটিক রোগী বা যাঁদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম, তাঁদের কোভিড সেরে যাওয়ার পর নাক-কান-গলার ডাক্তার দেখানো আবশ্যিক।

এই রোগের হদিস আগেও ছিল। কিন্তু বহুদিন খুব কম রোগী পাওয়া গেছে। গত বছর থেকে হু হু করে বাড়ছে এই সংখ্যা। এবং বেশির ভাগই কোভিড আক্রান্ত। একদম গোড়াতেই যদি এই রোগ ধরে ফেলা সম্ভব হয়, তা হলে তেমন ভয়ের কারণ নেই বলে জানান ডাক্তাররা।

আরও পড়ুন

টাটকা আপডেট

সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ