Wednesday, June 23, 2021

গোলাপি ঠোঁট করবেন কীভাবে ?

সৌন্দর্যের ক্ষেত্রে ঠোঁট মানুষের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। নজরকাড়া গোলাপি ঠোঁট মানুষের হাসিকে করে তোলে আকর্ষণীয়। টুকটুকে সুন্দর গোলাপি ঠোঁট সবার নজর কাড়ে। কেনা চায় নিজের ঠোঁটকে সুন্দর করতে । তার জন্য আমরা বিভিন্ন রকমের প্রসাধনী ব্যবহার করে থাকি। কিন্ত কোনোপ্রকার প্রসাধনী ছাড়া কীভাবে ঠোঁটকে আকর্ষণীয় করে তুলবেন? চলুন, ঘরোয়া উপায়ে সুন্দর গোলাপি ঠোঁট পাওয়ার উপায় জেনে নেওয়া যাক—

ঠোঁট এক্সফোলিয়েটঃ- রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে এবং ঘুম থেকে ওঠার পরে, মৃত বা শুকনো ঠোঁটকে পরিষ্কার টুথব্রাশ দিয়ে আলতো করে স্ক্রাবিং করুন। এরফলে ঠোঁটে রক্ত সঞ্চালনের পরিমাণ বাড়ে। এতে ঠোঁট হয়ে উঠবে গোলাপি এবং আকর্ষণীয়।

চিনির স্ক্রাবঃ- চিনি প্রাকৃতিক এক্সফোলিয়েটর হিসেবে কাজ করে। ত্বকের উপর জমে থাকা মৃত কোষ দূর করে ঠোঁটের রং হালকা করতে সাহায্য করে। দুই চামচ মাখনের সঙ্গে তিন চামচ চিনি মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট তৈরি করতে হবে। সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন এই স্ক্রাব ব্যবহারে ঠোঁটের রং হালকা হবে।

শসা ও নারিকেলঃ-  শশার রসের সঙ্গে সামান্য নারিকেল তেল নিয়ে ঠোঁটে ম্যাসাজ করুন। শশার রস ঠোঁটের কালোভাব দূর করতে শক্তিশালী ভূমিকা পালন করে।

হলুদ-দুধ প্যাকঃ- অর্ধেক চা চামচ হলুদ এবং সামান্য দুধ বা ক্রিম ব্যবহার করে একটি পেস্ট তৈরি করুন । এই প্যাকটি আপনার ঠোঁটে প্রায় ৫ মিনিটের জন্য প্রয়োগ করুন। দুধ বা ক্রিমের ল্যাকটিক অ্যাসিডটি অন্ধকার, রঞ্জক এবং শুকনো ঠোঁট হালকা ও নরম করতে কাজ করবে। তার সাথে হলুদের অ্যান্টি-সেপটিক এবং নিরাময়ের বৈশিষ্ট্যগুলি আপনার ঠোঁটকে স্বাস্থ্যকর রাখতে সহায়তা করবে।

মধুঃ- অনেক সময় ঠোঁটের রং কালচে হয়ে যায় তা কিছু বাহ্যিক কারণেই হয় তাঁর জন্য মধু বেশ উপকারী। তাই রাত্রে ঘুমোতে যাওয়ার আগে ঠোঁটে মধু মেখে নিতে পারেন যা সারারাত ঠোঁটের নমনীয়তা বজায় রাখতে সহায়তা করে। তাই মধু ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করে এবং ঠোঁটে গোলাপি ভাব যুক্ত করে।

ঘরোয়া লিপবামঃ- গোলাপি ঠোঁট তৈরি করার জন্য ঘরোয়া উপায়ে তৈরি করা লিপবাম খুব কাজে আসে। এই লিপবাম বাড়িতে তৈরি করার জন্য দুই চামচ পেট্রোলিয়াম জেলির সঙ্গে এক চামচ স্ট্রবেরি মিশিয়ে এটি তৈরি করা হয়। প্রতিদিন ব্যবহার করলে ঠোঁট উজ্জ্বল থেকে উজ্জলতর হয়ে ওঠে।

অলিভ অয়েলঃ- অলিভ অয়েলে রয়েছে ভিটামিনসহ নানারকম খনিজ উপাদান। প্রতিদিন ঘুমানোর সময় ঠোঁটে অলিভ অয়েল লাগিয়ে ঘুমালে ঠোঁট কোমল হয়।

গোলাপের পাপড়িঃ- ঠোঁটের গোলাপী ভাব আনতে গোলাপের পাপড়ি বিশেষ ভুমিকা পালন করে। গোলাপের পাপড়িকে অ্যারও কার্যকরী করে তুলতে তাঁর সাথে দুধ, মধু ও গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। এই প্রলেপটি ১০-১৫ মিনিট ঠোঁটে মাখুন। এরপর দুধ দিয়ে ঠোঁটকে মুছে নিন। প্রতিদিন এই প্রলেপটির ব্যবহার করার অভ্যাস গড়ে তুললে ঠোঁট হয়ে উঠবে আকর্ষনীয়।

পালং শাকঃ- ঘুমানোর আগে ঠোঁটে পালং পাতা ঘষে নিন। সঙ্গে রাখতে পারেন জাফরান। এই দুই সহজলভ্য উপাদানের নিয়মিত ব্যবহার আপনার ঠোঁটকে প্রানবন্ত করে তুলবে এক নিমিষেই।

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

টাটকা আপডেট

সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ