Wednesday, June 23, 2021

রাতারাতি ১০ লাখ ডাউনলোড, Koo App এখন ভারতে এত জনপ্রিয় কেন?

আত্মনির্ভর হওয়ার লক্ষ্যে ভারত অনেকটাই এগিয়ে গেল। এবার সোশ্যাল মিডিয়া সাইট টুইটারের বিকল্প ‘কুঅ্যাাপ’ তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। রাতারাতি ১০ লাখ ডাউনলোড হল টুইটারের দেশি ভার্সন ‘কুঅ্যাাপ’। গত বছরের ডিসেম্বর মাসে অপ্রমেয় রাধাকৃষ্ণ এই অ্যাপ ডেভেলপ করেছিলেন। এই অ্যাপ ইতিমধ্যেই ডিজিট্যাল ইন্ডিয়া আত্মনির্ভর ভারত ইনোভেট চ্যালেঞ্জে বিজয়ী হয়েছে। কিছুদিন আগে কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল টুইট করে জানান তিনি ‘কুঅ্যাাপ’ জয়েন করেছেন। গতকাল, বুধবার অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত টুইট করে জানিয়েছেন তিনি ‘কুঅ্যাাপ’ জয়েন করেছেন।

শুধু তারা একাই নন। দেশের একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী টুইটার থেকে সরে গিয়ে তার দেশি বিকল্প Koo App-এ অ্যাকাউন্ট খোলার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন। সেই তালিকায় রয়েছেন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা, নীতি আয়োগ – প্রত্যেকে টুইটারে গিয়েই Koo App প্রোমোট করেছেন। যে কারণে একটা সময় এ দেশের টুইটারে বেশ কিছুক্ষণের জন্য ট্রেন্ডিং হয়ে যায় Koo App। সেখান থেকেও বহু মানুষের কাছে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

কুঅ্যাাপ আসলে কী? এবং এর উদ্দেশ্য কী?

কুঅ্যাাপ টুইটারের মতো একটি দেশীয় বিকল্প প্ল্যাটফর্ম যেখানে ব্যবহারকারীরা তাদের মতামত প্রকাশ করতে পারে। বিভিন্ন ভাষায় দেশের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের সঙ্গে চিন্তাভাবনা শেয়ার করার ক্ষমতা দেশবাসীকে দেয় এই শক্তিশালী অ্যাপ। Aprameya Radhakrishna ২০২০ সালের মার্চ মাসে অ্যাপটি ডেভেলপ করেছিলেন।

কু এবং টুইটারের মধ্যে অন্যতম প্রধান পার্থক্য হল অ্যাপটি বিভিন্ন স্থানীয় ভাষায় পরিষেবা দেয়। যা ভারতীয় ব্যবহারকারীর কাছে প্ল্যাটফর্মটি সহজ করে তুলেছে। যেহেতু বিপুল সংখ্যক ভারতীয় জনগোষ্ঠী ইংরেজিতে কথা বলতে পারে না। আগামী আর কিছু দিনের মধ্যেই দেশের সমস্ত ভাষাই সাপোর্ট করবে এই অ্যাপে। এছাড়াও Koo App-এর আর একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার্স হল, এখানে ইউজারেরা 400 ক্যারেক্টার পর্যন্ত লিখতে পারবেন, যা টুইটারে ছিল না।

Koo App-এর সঙ্গে টুইটারের হুবহু মিল রয়েছে, যেখানে আপনি যে কাউকে ফলো করতে পারেন এবং আপনাকেও যে কেউ ফলো করতে পারে। এখানে আপনি মেসেজ লিখেও শেয়ার করতে পারেন। আপনার কাছে ফটো বা ভিডিয়ো ইত্যাদি মিডিয়া শেয়ারের অপশনও দেখাবে Koo App।

আরও পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

টাটকা আপডেট

সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ