Wednesday, June 23, 2021

রাজ্যবাসীর বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে চাইছে কেন্দ্র, আলাপনের বদলির নির্দেশে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৃণমূলের

মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বদলির নির্দেশে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানাল তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। গতকাল রাতে তিনি বলেন, ‘প্রতিহিংসার পথে হাঁটছে কেন্দ্র এবং বিজেপি। আমরা এর তীব্র বিরোধিতা করছি। করোনা এবং ইয়াস পরিস্থিতিতে এই বদলির নির্দেশের উদ্দেশ্যে শুধু পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ক্ষতি করতে নয়, পশ্চিমবঙ্গের মানুষের ক্ষতি করা। ভোটে হেরে পশ্চিমবঙ্গবাসীর বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিতে চাইছে কেন্দ্র।’

এ বিষয়ে কুনাল জানান, আলাপনের আগামী ৩১ মে পর্যন্ত কার্যকালের মেয়াদ থাকলেও রাজ্যবাসীর স্বার্থে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তা ৩ মাস বাড়ানোর জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন এবং সম্প্রতি নরেন্দ্র মোদীর সরকার তাতে সায়ও দিয়েছিল। তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেন, ‘ভোটে হারার পরে যত রকম ভাবে নোংরামো করা যায় ওরা বিজেপি সেটাই করছে।’

শুধু তৃণমূলই নয়, আলাপনের বদলি নিয়ে কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন বাম নেতা দীপঙ্কর। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘মোদী সরকার আক্রমণাত্মক সাম্রাজ্যবাদী শক্তির মতো আচরণ করছে। ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত একটি রাজ্যের মুখ্যসচিবকে দিল্লিতে টেনে আনাটা দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থার ইতিহাসে অত্যন্ত নিম্নরুচির। সমস্তটাই বাংলার মানুষকে শাস্তির দেওয়ার জন্য, যেখানকার মানুষজন মো-শা (নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ)-এর বাংলা দখলকে রুখে দিয়েছে।’

এদিকে নিবান্ন সূত্রে খবর, আলাপনের বদলির বিরোধিতা করে করে কেন্দ্রকে চিঠি দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যসচিবকে এখনই অব্যাহতি দেওয়া হবে না সেকথা জানিয়ে আজ, কেন্দ্রকে চিঠি দিতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রসঙ্গত, করোনা পরিস্থিতিতে রাজ্যের আর্জি মেনে নিয়ে আলাপন বন্যোপাধ্যায়ের মেয়াদ ৩ মাস বৃদ্ধি করেছিল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন

টাটকা আপডেট

সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ