Wednesday, June 23, 2021

অযুর দোয়া ও নিয়ত এবং অযুর করার নিয়ম জেনে নিন

পবিত্রতা অর্জনের মাধ্যম হচ্ছে অজু। অনেক ইবাদতের জন্য অজু করা ফরজ। সব সময় অজু অবস্থায় থাকা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের দায়েমি সুন্নাতও বটে। হাদিসের বর্ণনা মতে অজুর শুরু ও শেষে রয়েছে ফজিলতপূর্ণ একাধিক দোয়া।

অযুর নিয়ত

উচ্চারন: নাওয়াইতু আন আতাওয়াজ্জায়া লিরাফয়িল হাদাসি ওয়া ইস্তিবাহাতা লিছছালাতি ওয়া তাকাররুবান ইলাল্লাহি তা’য়ালা।

অর্থ: আমি ওযুর নিয়ত করছি যে নাপাকি দূর করার জন্য বিশুদ্ধরূপে নামাজ আদায়ের উদ্দেশ্য এবং আল্লাহ তা’য়ালা।

অযুর দোয়া

উচ্চারণ: বিসমিল্লাহিল আলিয়্যিল আজিম। ওয়াল হামদুলিল্লাহি আলা দ্বীনিল ইসলাম। আল ইসলামু হাক্কুন। ওয়াল কুফরু বাতিলুন। ওয়াল ইসলামু নুরুন। ওয়াল কুফরু জুলমাত।

অর্থ: মহান ও পরাক্রান্ত আল্লাহ তায়ালার নামে আরম্ভ করছি। আমি দ্বীন ইসলামের উপর আছি। তাই আল্লাহর জন্য যাবতীয় প্রশংসা।নিশ্চই ইসলাম সত্য ও কুফুর বাতিল এবং ইসলাম আলো ও কুফুর অন্ধকার।

ওযুর চার ফরয:
১. সমস্ত মুখমন্ডল কপালের উপরিভাগের চুলের গোড়া হইতে থুতনী পর্যন্ত, এক কর্নের লতি থেকে অন্য কর্নের লতি পর্যন্ত ধৌত করা।
২.উভয় হাত কনুইসহ ধৌত করা।
৩.চারভাগের একভাগ মাথা মাসেহ করা ( ঘন দাঁড়ি থাকিলে আঙ্গুলী দ্বারা খেলাল করা ফরয )।
৪.উভয় পা টাখনু গিরা সহকারে ধৌত করা ।

অযুর ১৪টি সুন্নাত

১. নিয়ত করা।
২. বিসমিল্লাহ্‌ বলে ওযু শুরু করা।
৩. হাতের আঙ্গুল খিলাল করা।
৪. উভয় হাত কবজি পর্যন্ত ধৌত করা।
৫. মিসওয়াক করা।
৬. তিনবার কুলি করা।
৭. তিনবার নাকে পানি দেয়া।
৮. সম্পূর্ন মুখ মন্ডল তিনবার ধৌত করা।
৯. উভয় হাতের কনুইসহ তিনবার ধৌত করা।
১০. সমস্ত মাথা একবার মাসেহ করা।
১১. টাখনু সহ উভয় পা তিবার ধৌত করা।
১২. পায়ের আঙ্গুল খিলাল করা।
১৩. এক অঙ্গ শুকানোর পূর্বে অন্য অঙ্গ ধৌত করা।
১৪. ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ওযুর কাজ গুলো সম্পূর্ন করা।

ওযু ভঙ্গের কারণ সমূহ

১. পায়খানা প্রস্রাবের রাস্তা দিয়া কোন কিছু বের হওয়া
২. মুখ ভরে বমি হওয়া
৩. শরীরের কোন জায়গা হতে রক্ত, পুঁজ বা পানি বের হয়ে গড়িয়ে পড়া
৪. থুথুর সাথে রক্তের ভাগ সমান বা বেশি হওয়া
৫. চিৎ বা কাত হয়ে হেলান দিয়ে ঘুম যাওয়া
৬. পাগল, মাতাল, অচেতন হওয়া এবং
৭. নামাযে উচ্চস্বরে হাসা।

আরও পড়ুন

টাটকা আপডেট

সবচেয়ে জনপ্রিয় সংবাদ